Wednesday , June 20 2018
Home / আলোচিত সংবাদ / আমার কিছু হলে পরিবারটাকে দেখিয়েন: কোটা আন্দোলন নেতার আবেদন

আমার কিছু হলে পরিবারটাকে দেখিয়েন: কোটা আন্দোলন নেতার আবেদন

আবারো মারধরের হুমকি দেয়া হয়েছে অভিযোগ করে কোটা আন্দোলনের নেতা ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী এপিএম সোহেল বলেছেন, সবার কাছে করজোড়ে মিনতি আমাকে বাঁচতে দিন। আমার বিধবা মায়ের স্বপ্নগুলো পূরণ করতে দিন। আমিই পরিবারের সব।
বুধবার হামলার শিকার হওয়ার পর তিনি বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ১০১ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
নিজের নিরাপত্তা দাবি করে তিনি বলেন, আমি একটা এতিম ছেলে। আমরা আপনাদের সন্তান। আমরা বাংলাদেশের সন্তান। আমরাও বাঁচতে চাই। বিধমা মায়ের মুখে হাসি ফোটাতে চাই।
তিনি বলেন, আমার বাবা নেই, আমার ভাই পিয়নের কাজ করে বাসায় টাকা দিত। কিন্তু সে এখন গ্রামে চলে গেছে। অন্যের জমিতে চাষ করে। আজ সকালে দেখি শুকিয়ে সে কাঠ হয়ে আছে। আমার ভাই ঠিকমতো কথা বলতে পারে না। খালি কাঁদে, আমার বিধমা মাও কাঁদে।

হাসপাতালে বেডে শুয়েই শুক্রবার দিবাগত রাতে তিনি লিখেছেন, কোটা আন্দোলনের জন্য দ্বিতীয়বার তাকে মার খেতে হয়েছে। প্রথমবার চড়-থাপ্পর ও লাথি মারা হয়েছিল। দ্বিতীয়বারের মারধরে ঠোঁটের বাইরে ৯টা ও ভেতরেও দুটি সেলাই লেগেছে।
সোহেল বলেন, ওরা আমাকে মারার সময় হাত দিয়ে মুখ ঢেকে রেখেছিলাম। হাতেও ব্যথা। লিখতে কষ্ট হচ্ছে। ডান পায়ের হাঁটুতে ওরা অনেকগুলো আঘাত করে। পা সোজা কিংবা বাঁকা করতে গেলেই হাঁটুর জোড়ায় টান পড়ে।
তাকে মারধরের সময় হামলাকারীরা মশকরা করেন এই বলে যে “ভাইয়ের চেহারা খুব সুন্দর, আয় মাইরের আগে সেলফি তুলি”।

About jasimuddincox100

Check Also

মহিলা ক্রিকেট দলের শিরোপা জয় উদযাপন করলো জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা।।(ভিডিও সহ)

মহিলা ক্রিকেট দলের শিরোপা জয় উদযাপন করলো জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা।।(ভিডিও সহ) Related