Wednesday , June 20 2018
Home / আলোচিত সংবাদ / ড. আফিয়া সিদ্দিক বেঁচে আছেন

ড. আফিয়া সিদ্দিক বেঁচে আছেন

পাকিস্তানের আলোচিত নাগিরক ও বিখ্যাত স্নায়ুবিজ্ঞানী ড. আফিয়া সিদ্দিকির মৃত্যুর খবরকে ‘ভিত্তিহীন ও মিথ্যা’ বলে অভিহিত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের হিউস্টনে পাকিস্তানি কাউন্সেল জেনারেল আয়িশা ফারুকি। বুধবার তিনি আফিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন বলেও জানান।

আয়িশার বরাত দিয়ে পাকিস্তানি গণমাধ্যম ডন জানিয়েছে, আফিয়ার সঙ্গে টেক্সাসের একটি ফেডারেল মেডিক্যাল সেন্টারে তারা দুই ঘণ্টা ধরে কথা বলেছেন। ওই মেডিক্যাল সেন্টারটি যাদের বিশেষ চিকিৎসার দরকার ও মানসিক সেবা দরকার- সেসব নারী বন্দিদের জন্য করা হয়েছে।

বুধবার পাকিস্তান কনস্যুলেটের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ড. আফিয়া সিদ্দিকির সঙ্গে দেখা করতে আজ কাউন্সেল জেনারেল আয়িশা ফারুকি ফেডারেল মেডিক্যাল সেন্টারে গিয়েছেন। ড. আফিয়ার সঙ্গে তার দুই ঘণ্টা বৈঠক হয়েছে।

পাকিস্তান কনস্যুলেটের বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, ‘আফিয়া সিদ্দিকি সম্পর্কে সাম্প্রতিক গুজব সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, মিথ্যা ও প্রত্যাখ্যাত। আফিয়ার কারাগারের ফেডারেল মেডিক্যাল সেন্টারে কাউন্সেল জেনারেল তার সঙ্গে দেখা করেছেন। গত ২৪ মাসে এটা কাউন্সেল জেনারেলের চতুর্থ সফর।’

২০১০ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর মার্কিন একটি আদালত বিখ্যাত স্নায়ুবিজ্ঞানী ড. আফিয়া সিদ্দিকিকে ৮৬ বছরের কারাদণ্ড দেয়। এরপর থেকে বিভিন্ন সময়ে খবর বেরোয়, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের কারাগারে মারা গেছেন।

আফিয়ার সমর্থকদের দাবি, গ্রেপ্তার করে পাকিস্তান সরকার তাকে মার্কিন গোয়েন্দাদের হাতে তুলে দিয়েছে। তবে পাকিস্তানি ও মার্কিন কর্তৃপক্ষ জানিয়ে আসছে, আফিয়াকে আফগানিস্তান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ড. আফিয়া সিদ্দিকি পৃথিবীর বিজ্ঞান শিক্ষার শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (এমআইটি) একজন গ্রাজুয়েট। একজন মার্কিন সেনাকে হত্যার চেষ্টা করেছেন- এমন অভিযোগে তাকে ৮৬ বছরের ওই কারাদণ্ড দেয়া হয়।

আফিয়ার পরিবার ও ভক্তদের দাবি, ইসলামপন্থি হওয়ার কারণেই মার্কিন কর্তৃপক্ষ তাকে সন্ত্রাসী সাজিয়ে সাজা দিয়েছে। আফিয়া পাকিস্তানের একটি দেওবন্দি মুসলিম পরিবারে জন্ম নেন। এই নারী কুরআনের একজন হাফেজ। যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্ব বাণিজ্যকেন্দ্রে হামলার পর আফিয়া পাকিস্তানে চলে আসেন। ২০০৩ সালে তাকে কথিত সন্ত্রাসী তালিকাভুক্ত করে মার্কিন তদন্ত সংস্থা এফবিআই। এরপর থেকে তার তিন সন্তানও পাকিস্তান থেকে নিখোঁজ হয়ে যায়। আফিয়ার এই ঘটনায় মুসলিম বিশ্বে ব্যাপক ক্ষোভের জন্ম দেয়।

About jasimuddincox100

Check Also

মহিলা ক্রিকেট দলের শিরোপা জয় উদযাপন করলো জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা।।(ভিডিও সহ)

মহিলা ক্রিকেট দলের শিরোপা জয় উদযাপন করলো জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা।।(ভিডিও সহ) Related