Thursday , October 18 2018
Home / আইন ও বিচার / জামায়াত নেতাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের মিথ্যা সাক্ষ্য দিয়ে ৬ বছর ধরে সরকারী ‘গৃহবন্দি’ বুলবুল !

জামায়াত নেতাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের মিথ্যা সাক্ষ্য দিয়ে ৬ বছর ধরে সরকারী ‘গৃহবন্দি’ বুলবুল !

অপারেশনের আগে ১০ সেকেন্ডের জন্য বুকের মাঝে বাংলাদেশের পতাকা এবং কোরআন শরিফ রাখতে চান বলে জানিয়েছেন দেশের খ্যাতনামা সঙ্গীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। তিনি ছয় বছর ধরে পুলিশি প্রহরায় গৃহবন্দি থেকে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলেও জানান।
মঙ্গলবার প্রখ্যাত এ সঙ্গীত পরিচালক তার ব্যক্তিগত ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস শেয়ার করেন।

সেখানে তিনি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিরুদ্ধে ২০১২ সালে সরকারের নির্দেশে সাক্ষী দেন। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে ঘটে যাওয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলখানার গণহত্যার সম্পূর্ণ ইতিহাস সম্পর্কে। আর ওই গণহত্যা থেকে বেঁচে যাওয়া ৫ জনের মধ্যে আমিও একজন, হত্যা করা হয়েছিল একসঙ্গে ৪৯ জন মুক্তিযোদ্ধাকে।

বুলবুল বলেন, এই সাক্ষীর কারণে আমার নিরপরাধ ছোটো ভাই ‘মিরাজ’ হত্যা হয়ে যাবে এ আমি কখনোই বিশ্বাস করতে পারিনি। সরকারের কাছে বিচার চেয়েছি, বিচার পাইনি। তিনি তার ফেসবুক পেজে একমাত্র সন্তানকে নিয়ে ‘গৃহবন্দি’ রয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন। পাঠকদের জন্য বরেণ্য এ সঙ্গীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের ফেসবুক পেজ থেকে স্ট্যাটাটি হুবহু তুলে ধার হলো।

‘বন্ধুরা, সরকারের নির্দেশেই ২০১২ তে আমাকে যুদ্ধ অপরাধীর ট্রাইব্যুনালের কাঠগড়ায় সাক্ষী হিসাবে দাঁড়াতে হয়েছিল। সাহসিকতার সঙে সাক্ষ্যপ্রমাণ দিতে হয়েছিল ১৯৭১ এ ঘটে যাওয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলখানার গণহত্যার সম্পূর্ণ ইতিহাস। আর, ওই গণহত্যা থেকে বেঁচে যাওয়া ৫ জনের মধ্যে আমিও একজন। হত্যা করা হয়েছিল একসাথে ৪৯ জন মুক্তিযোদ্ধাকে।

কিন্তু, এই সাক্ষীর কারণে আমার নিরপরাধ ছোট ভাই “মিরাজ” হত্যা হয়ে যাবে এ আমি কখনোই বিশ্বাস করতে পারিনি। সরকারের কাছে বিচার চেয়েছি, বিচার পাইনি। আমি এখন ২৪ ঘণ্টা পুলিশ পাহারায় গৃহবন্দি থাকি, একমাত্র সন্তানকে নিয়ে। এ এক অভূতপূর্ব করুণ অধ্যায়।

একটি ঘরে ৬ বছর গৃহবন্দি থাকতে থাকতে আমি আজ উল্লেখযোগ্যভাবে অসুস্থ। আমার হার্টে ৮টা ব্লক ধরা পড়েছে, এবং বাইপাস ছাড়া চিকিৎসা সম্ভব না। “এরই মাঝে কাউকে না জানিয়ে আমি “ইব্রাহিম কার্ডিয়াক” এ সিসিইউ তে চার দিন ভর্তি ছিলাম”

প্রিয়বন্ধুরা, আগামী ১০ দিনের মধ্যে আমি আমার হার্টের বাইপাস করাতে প্রস্তুত রয়েছি। কোনো সরকারি সাহায্য বা শিল্পী, বন্ধুবান্ধব সাহায্য আমার দরকার নাই, আমি একাই যথেষ্ট (শুধু অপারেশনের আগে ১০ সেকেন্ডের জন্য বুকের মাঝে বাংলাদেশের পতাকা এবং কোরআন শরিফ রাখতে চাই)।

আর তোমরা আমার জন্য শুধু দোয়া করবে। কোনো ভয় নেই।

তোমাদের,

আ,ই,বুলবুল।
বি:দ্র: এই পোস্ট এর আমি কোনো কমেন্টের রিপ্লাই দিবো না।’

About banglamail

Check Also

সরকারের হাত আদালতের চেয়েও লম্বা

মঙ্গলবার, ঈদের আগের দিন জামিন পেলেন অভিনেত্রী নওশাবা। এর আগে জামিন পেয়েছেন শিক্ষার্থীরা। তাঁরা কোটা …