ইসলামী ছাত্র সংঘের সাবেক সভাপতির নামে কাবা শরীফের একটি দরজার নামকরন !

পবিত্র কাবা শরীফে প্রবেশের আটটি দরজা আছে। এর মধ্যে একটি দরজার নাম রাখা হয় “বাবে মুরাদ” যা খুররাম জাহ মুরাদের নাম অনুযায়ী রাখা হয়েছে।

খুররাম মুরাদ ছিলেন একজন বিখ্যাত ইঞ্জিনিয়ার। তিনি ইউভার্সিটি অব মিনেসোটা থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েছিলেন। ১৯৭৫ সালে যখন পবিত্র কাবা শরীফের সংস্কার কাজ শুরু হয়েছিল তখন ইঞ্জিনিয়ার খুররাম মুরাদের ডাক পড়ে এক্সটেনশন এর ডিজাইন এর জন্য।

কাবা শরীফের এক্সটেনশন এর সিলিং থেকে অনেক ডিজাইনই তার করা। তিনি যখন আরব বাদশাহকে তার ডিজাইন জমা দিলেন বাদশাহকে খুররাম মুরাদকে যা ইচ্ছা গ্রহন করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তখন খুররাম মুরাদ বলেছিলেন, “আপনি আমাকে সম্পদ দিতে চাইছেন তা আপনার বদান্যতা, আর আমি এর প্রতিদান আপনার কাছ থেকে না নিয়ে আমার রবের নিকট থেকে নিতে চাচ্ছি এটা আমার বদান্যতা”।

এর পর বাদশাহ পবিত্র কাবায় প্রবেশের আটটি দরজার একটা দরজা খুররাম মুরাদের নামে, “বাবে মুরাদ” রাখেন। খুররাম মুরাদ শুধু একজন ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন না তিনি একজন বিখ্যাত ইসলামিক স্কলার ও নেতা ছিলেন।

তিনি “ইসলামে নেতৃত্বের গুনাবলি”, “ইসলামি আন্দোলনের কর্মীদের পারস্পরিক সম্পর্ক “সহ অনেক জনপ্রিয় বই লিখেছেন। তিনি ইসলামি ছাত্র সংঘের কেন্দ্রীয় সভাপতি ছিলেন। ছিলেন পাকিস্তান জামায়াতে ইসলামির নায়েবে আমির। তিনি ঢাকা মহানগরী জামায়াতে ইসলামীর আমির ছিলেন।

Comments Us On Facebook: