Tuesday , October 23 2018
Home / রাজনীতি / দলভাঙার আশাভঙ্গ, বিএনপি ঐক্যবদ্ধ: মওদুদ

দলভাঙার আশাভঙ্গ, বিএনপি ঐক্যবদ্ধ: মওদুদ

খালেদা জিয়াকে কারাগারে নিয়েও দল ভাঙার সরকারের আশা পূরণ হয়নি মন্ত্মব্য করে বিএনপি ঐক্যবদ্ধ রয়েছে বলে দাবি করেছেন মওদুদ আহমদ। বিএনপি চেয়ারপারসনকে কারাগারে রেখে নির্বাচন হবে না বলেও শুক্রবার এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য এই হুশিয়ারি দেন।

তিনি বলেন, অনেকেই অনেক রকম গুঞ্জন আপনারা শুনেছেন যে, খালেদা জিয়াকে কারাগারে নিয়ে গেলেই তো ব্যস বিএনপি… এখনো তো গুঞ্জন চলছে। আমি আপনাদের আশ্বাস দিয়ে বলতে চাই, খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করে তারা (সরকার) যে আশাটা করেছিল, সে আশা ভঙ্গ হয়েছে। উনি (খালেদা জিয়া) বেরিয়ে আসুন আর কারাবন্দি থাকুন, বিএনপি ঐক্যবদ্ধ থাকবে। খালেদা জিয়ার ওকালতনামায় স্বাক্ষর করা নিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগ তুলে মওদুদ বলেন, একদিকে সরকার বলে দেশের বিচার বিভাগ স্বাধীন। আবার অন্যদিকে বলে এই যে দেইখো ওকালতনামা কিন্তু তাড়াতাড়ি দিও না। এ থেকে এটা স্পষ্ট যে, এই দ্বিমুখী নীতির কারণেই খালেদা জিয়ার কারামুক্তি বিলম্বিত হচ্ছে।

ওকালতনামার বিষয়টি ব্যাখ্যা করে মওদুদ বলেন, ‘ওকালতনামা ছাড়া আমরা তো তার (খালেদা জিয়া) জন্য আদালতে এপিয়ার করতে পারব না- এটা স্বাভাবিক, এটা ফান্ডামেন্টাল বিষয়।’ আমাকে যদি আইনজীবী হিসেবে কোনো মক্কেল বা কারও পক্ষে আদালতে যেতে হয় তাহলে আগে তাকে ওকালতনামায় সই করতে হবে। সেই জিনিসটি যদি না আসে তাহলে আমরা কী করে আদালতে যাব? একাদশ নির্বাচন সম্পর্কে সাবেক আইনমন্ত্রী বলেন, যদি সরকার মনে করে তারা ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো আরেকটি নির্বাচন করবে তাহলে তারা দিবাস্বপ্ন দেখছে, যা কোনোদিন বাস্ত্মবায়িত হবে না। আগামী মাসগুলো আমাদের জন্য পরীক্ষার মাস। এখন শান্ত্মিপূর্ণ আন্দোলন করে আমরা দেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করার চেষ্টা করছি।

‘একটা সময় আসবে যদি সরকার কোনো সমঝোতায় না আসে তখন রাজপথ ছাড়া আমাদের কোনো বিকল্প থাকবে না।’ জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জিয়া নাগরিক ফোরামের (জিনাফ) উদ্যোগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এ আলোচনা সভা হয়। সভায় স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশ হওয়ার স্বীকৃতি অর্জন কোনো একক সরকারের কৃতিত্ব নয় বলে মন্ত্মব্য করেন মওদুদ আহমদ। সংগঠনের সভাপতি মিয়া মো. আনোয়ারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন ও স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুলস্নাহ বক্তব্য রাখেন।

বিচার বিভাগ সরকারের ইচ্ছা পূরণের হাতিয়ার: রিজভী

এদিকে ?বিচার বিভাগ সরকারের ইচ্ছা পূরণের হাতিয়ার হিসেবে কাজ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রম্নহুল কবির রিজভী। শুক্রবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। রম্নহুল কবির রিজভী বলেন, ‘দেশের বিচার বিভাগ সরকারি প্রভাবমুক্ত নয়, বরং বিচার বিভাগ সরকারের ইচ্ছা পূরণেরই হাতিয়ার হিসেবে কাজ করছে। প্রহসনের বিচারের মাত্রা দিনকে দিন বেড়েই চলেছে।’

খালেদা জিয়ার মামলায় সরকার একের পর এক ‘হস্ত্মক্ষেপ’ করে নোংরা খেলা খেলছে এমন মন্ত্মব্য করে তিনি বলেন, এটা দেখে গোটা জাতি শুধু বিস্মিতই নয়, ঘৃণায় ধিক্কার জানাচ্ছে। রিজভী অভিযোগ করেন, ‘সরকার ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে সাজা দিয়ে খালেদা জিয়াকে বন্দি করার পর এখন তার জামিন বিলম্ব করতে ওকালতনামায় স্বাক্ষর নিতে পর্যন্ত্ম বাধা প্রদান করছে। বিএনপি চেয়ারপারসনকে জেলে বন্দি করার পর তাকে আরও চারটি মিথ্যা, সাজানো মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। অনেকবার চেষ্টা করেও আইনজীবীরা ওকালতনামায় খালেদা জিয়ার স্বাক্ষর নিতে পারেননি কারা কর্তৃপক্ষের অসহযোগিতায়। তিনি বলেন, গত কয়েক দিনে বেশ কয়েকটি মামলার ওকালতনামায় খালেদা জিয়ার সই নিতে গিয়ে কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি না পেয়ে আইনজীবীরা ফিরে এসেছেন। এ জন্য এসব মামলায় আইনি পদক্ষেপ নেয়া যাচ্ছে না। সরকার খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রেখে যে এক ভয়ানক ফন্দি আঁটছে সেটা এখন সুস্পষ্ট হয়ে উঠছে।

বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার তাদের ক্ষমতাকে টিকিয়ে রাখতে নানা ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে মন্ত্মব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘কোনো ষড়যন্ত্র কাজে আসবে না। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের আপসহীন নেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে এবং বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠায় আন্দোলন সর্বব্যাপী তীব্র থেকে তীব্রতর করা হবে। সব ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দেশনেত্রীকে কারামুক্ত করা হবে এবং অচিরেই দেশে গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা হবে ইনশালস্নাহ।’

তিনি বলেন, ‘আজ সকালে সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী তথা বিএনপি সমর্থিত প্যানেল সভাপতি সম্পাদকসহ ১০টি পদে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। আমি বিএনপির পক্ষ থেকে তাদের এবং যারা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন তাদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। এ বিজয় দেশের বিচারাঙ্গনে সরকারি নগ্ন হস্ত্মক্ষেপের প্রতিবাদ। দেশের বিচার বিভাগের এই চরম সংকটে সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবীরা সঠিক রায় দিয়ে বিচারালয়ে সরকারি নোংরা খেলার দ্ব্যর্থহীন প্রতিবাদ জানিয়েছেন।’ সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: যায়যায়দিন

সবাইকে জানিয়ে দিতে নিউজটি অবশ্যই শেয়ার করুন

About editor

Check Also

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার লাশ নিতে পরিবারের অস্বীকৃতি, দাফনে বাধা

সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কে এম মোশাররফ হোসেন হত্যা মামলার প্রধান …