Wednesday , October 24 2018
Home / রাজনীতি / বর্তমান নির্বাচন কমিশন সরকারের তল্পিবাহক

বর্তমান নির্বাচন কমিশন সরকারের তল্পিবাহক

বর্তমান নির্বাচন কমিশন সরকারের তল্পিবাহক। এরা সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়নে ব্যস্ত এবং দেশে গুম, খুন ও ধর্ষণের উন্নয়ন বলে মন্তব্য করেছেন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শীর্ষ নেতা, খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক। খেলাফত মজলিস আমীরের ভাষায়-দেশে যে উন্নয়ন হয়েছে তা গুম, খুন ও ধর্ষণের উন্নয়ন। উন্নয়নশীল দেশ হওয়ার জন্য সরকার যে বুলি আওড়াচ্ছে তা শুধু হাওয়ায় ভাসছে। বাস্থবে কোন উন্নয়ন হয়নি। দেশের দুই দুই বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগে জেলে দেয়া হয়েছে। যে দুই কোটি টাকা আত্মসাতের কথা বলা হয়েছে সে টাকা ব্যংকেই পড়ে পছে। এ টাকা দুই কোটি থেকে বেড়ে ৬ কোটিতে পরিণত হয়েছে। তিনি নির্বাচন কমিশন নিয়ে বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন সরকারের তল্পিবাহক। এরা সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়নে ব্যস্ত। তাদের অধিনে জনগনের আস্থার প্রতিফলন হবে না। গতকাল বিকালে মৌলভীবাজার খেলাফত মজলিসের উদ্যোগে শহরের পৌর মিনি বাসস্ট্যান্ডে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খেলাফত মজলিসের মৌলভীবাজার শহর শাখার সভাপতি সৈয়দ মুজাদ্দিদ আলীর সভাপতিত্বে আয়োজিত জনসমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় যুগ্নমহাসচিব মুহাম্মদ মুনতাসির আলী, যুক্তরাজ্য খেলাফত মজলিসের সহসভাপতি শায়খ হাসান নূরী চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সহপ্রশিক্ষণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শামছুজ্জামান চৌধুরী, জেলা সহসাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালিক, আরব আমীরাতের দায়িত্বশীল মাওলানা আব্দুশ শহিদ জহির, সদর দক্ষিনের সভাপতি মাওলানা শিব্বির আহমদ, রাজনগর উপজেলা সভাপতি মাওলানা ফখরুল ইসলাম প্রমুখ।

খেলাফত মজলিসের সাংগঠনিক মাস উপলক্ষে আয়োজিত এই জনসভায় দলের আমীর, সাবেক মন্ত্রী অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক আরো বলেন, ডিসেম্বরেই নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ২০ দলীয় জোট নির্বাচনের অংশ নিলে মৌলভীবাজার-৩ (সদর-রাজনগর) আসনে খেলাফত মজলিস প্রার্থী দেবে। এ আসনে দলের মৌলভীবাজার জেলা সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আহমদ বিলালকে কাজ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছি। জোটের নেতার সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। আমরা যে আসনগুলো চেয়েছি এরমধ্যে মৌলভীবাজার-৩ অন্যতম। এ আসনে জোটের প্রধান দল বিএনপির যে প্রার্থী রয়েছেন জোট ক্ষমতায় আসলে তাকে মন্ত্রী করা হবে। তাদের টেনশনের কোন কারণ নেই।

আমীরে মজলিস এসময় বলেন, সরকার পুলিশের মাধ্যমে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের প্রতিদিনই জেলে ঢুকাচ্ছে। বিরোধী দলের কাউকে মিছিল মিটিং এমনকি নিরব মানববন্ধনও করতে দিচ্ছেনা। এটা কিসের উন্নয়ন? যে উন্নয়নশীল দেশে মানুষ স্বাধীনভাবে মত প্রকাশ করতে পারে না।

About editor

Check Also

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার লাশ নিতে পরিবারের অস্বীকৃতি, দাফনে বাধা

সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কে এম মোশাররফ হোসেন হত্যা মামলার প্রধান …