Friday , July 20 2018
Home / পাঠক কলাম / দাসত্বের শুরু যেখানে…

দাসত্বের শুরু যেখানে…

কংগ্রেসের নতুন সভাপতি রাহুল গান্ধী, সাবেক সভাপতি সোনিয়া গান্ধী, ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, দেশটির বর্তমান সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা আনন্দ শর্মা সঙ্গে বৈঠক করেছেন আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। ভারতের সময় দুপুর ১২টায় এ বৈঠক হয়।আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলে আছেন দলটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি ও উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া। বৈঠকের পর এসব তথ্য জানান বিপ্লব বড়ুয়া।

বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, ‘অত্যন্ত সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে বৈঠক হয়েছে। এতে বাংলাদেশের নানা বিষয় উঠে আসে।’বৈঠকে রাহুল গান্ধী বলেন, ‘বাংলাদেশ তৈরি পোশাক খাত অভূতপূর্ব উন্নতি করেছে। আমি বাংলাদেশের ব্যাপারে সব খোঁজ-খবরই রাখি।’

এসময় সোনিয়া গান্ধী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সঙ্গে কংগ্রেসের ঐতিহাসিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার বাংলাদেশের সব খাতের উন্নয়নে অনেক কাজ করেছে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে ও ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে দেওয়া বিশেষ সম্মাননা ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা সম্মাননা’ (মরণোত্তর) পদক গ্রহণ করতে ২০১১ সালের ২৪ জুলাই বাংলাদেশে আসেন সোনিয়া গান্ধী। সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে সোনিয়া গান্ধী বলেন, ‘বাংলাদেশ সফরের সময় আওয়ামী লীগ সরকারের আতিথেয়তা মুগ্ধ হয়েছিলাম।’

১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্তিলাভ করে দিল্লি এয়ারপোর্টে যান। ওই সময় বঙ্গবন্ধুকে অভ্যর্থনা জানাতে এয়ারপোর্টে যান ইন্ধিরা গান্ধী। সে সময় বঙ্গবন্ধুকে এক পলক দেখার জন্য ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে সোনিয়া গান্ধীও ছিলেন বলেও জানান বৈঠকে।

বৈঠকে কংগ্রেসের অন্য নেতারা শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নকাজের ব্যাপারে সন্তোষ প্রকাশ করেন।এর আগে রাহুল গান্ধীকে খাদি পাঞ্জাবি, ‘কারাগারের রোজনামচা’, ‘বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবিনী’ উপহার দেওয়া হয় বলেও জানান বিপ্লব বড়ুয়া।

অল ইন্ডিয়া কংগ্রেস কমিটির আমন্ত্রণে আওয়ামী লীগের তিন সদস্যদের প্রতিনিধি দলটি ভারতে গেছে। ১৭ ও ১৮ মার্চ অনুষ্ঠেয় ৮৪তম ন্যাশনাল কংগ্রেসের প্ল্যানারি সেশনে তারা যোগ দেবে।

ফেসবুকে সমালোচনা উঠেছে, দাসত্বের শুরু যেখানে…! নেতৃত্তে খোদ আওয়ামিলীগ নেত্রী

About banglamail

Check Also

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ও গরুর গল্প

“একলোক আগে প্রতিদিন ৬০ টাকা ধরে দুধ কিনতো ।মাসে যাইত ১৮০০টাকা! চিন্তা কইরা দেখলো প্রতিদিন …