Wednesday , October 17 2018
Home / অপরাধ / দুই মন্ত্রীর ছত্রছায়ায় যুবলীগ নেতা হত্যার পলাতক আসামিরা!

দুই মন্ত্রীর ছত্রছায়ায় যুবলীগ নেতা হত্যার পলাতক আসামিরা!

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খানকে ফুলের শুভেচ্ছা দিয়ে বরণ করেছেন একাধিক হত্যা মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামীরা। এসময় ফটোসেশন করেন পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব। যারা যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা আশরাফুল ইসলাম হত্যা মামলার চিহ্নিত আসামী। যদিও পুলিশ দীর্ঘ দিন ধরে এ সমস্ত আসামীদের খুঁজে পাচ্ছে না।

শুক্রবার বিকেলে নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার ১১ নং নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নে এমনি ঘটনা ঘটে । এ সময় এলাকাবাসী ও বিভিন্ন স্থান থেকে আসা উপস্থিত লোকজন সমালোচনার মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। উপস্থিত ব্যাক্তিতের বক্তব্য হচ্ছে, মন্ত্রী মহোদয়ের অনুষ্ঠানে চিহ্নিত ও দাগী একাধিক মামলার আসামীরা উপস্থিত থাকা মানে স্থানীয় প্রশাসনকে তারা বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখালো। আর এসব আসামীরা স্থানীয় এমপি আয়েশা ফেরদৌসের সমর্থিত ও অনুগত। তারা আরো বলেন, এ অনুষ্ঠানে আসামী যারা উপস্থিত ছিলো তারা শুধু কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা প্রফেসার আশ্রাফ উদ্দিন হত্যা মামলার আসামি নয়। এরা চরকিং ইউনিয়নের স্থানীয় যুবলীগ কর্মী নুর আলম, চরঈশ্বর ইউনয়নের মোঃ মুরাদ, সোনাদিয়া ইউনিয়নের মোঃ রিয়াজ উদ্দিনের হত্যা মামলাসহ পুলিশ আহত, অস্ত্র, ডাকাতি, চাঁদাবাজি ও লুটপাটের একাধিক গুরুতর মামলার চার্জশিট ও ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামী। আর এসব আসামীরা হলো, হাতিয়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের আলী আফরোজ খান নোহেল, চরকিং ইউনিয়নের মহিউদ্দিন মুহিন, নুরুল আফছার রাহাত, পৌরসভা ৩নং ওয়ার্ডের তানভীর হোসেন রুবেল, ৫নং ওয়ার্ডর বাহার উদ্দিনসহ আরো অনেকে।

এব্যাপারে হাতিয়া থানা ওসি (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) কামরুজ্জামান শিকদার বলেন, আমরা মন্ত্রী মহোদয়ের প্রটোকল নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। এসময় আসামী কারা ছিলো, এটা বলতে পারবো না। এ রকম কাউকে আমরা দেখিনি। তাছাড়া এখানকার ১০০জন মানুষের মধ্যে ৯০জনই কোন না কোন মামলার আসামী।

হাতিয়ায় নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নে নৌ পরিবহনের উদ্যোগে লাইটহাউজ ও কোস্টাল রেডিও স্টেশনের ভিত্তি প্রস্তর স্হাপন উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে লাইটহাউজ ও কোস্টাল রেডিও স্টেশনের ভিত্তি প্রস্থর স্হাপন উদ্বোধন করেন নৌপরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান এমপি। এ সময় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি এবং হাতিয়ার সসাংসদ আয়েশা ফেরদাউস। আরো উপস্থিত ছিলেন, নোয়াখালী জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার একেএম জহিরুল ইসলাম, হাতিয়া থানার এ এসপি (সার্কেল) ওমর ফারুক, নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার মোঃ রেজাউল করিম, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান শিকদার প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ৩০ মার্চ হাতিয়া আফাজিয়া বাজারে ঈশ্বর ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নাম্বার ওয়ার্ড মেম্বার রবীন্দ্র কুমার দাসের নেতৃত্বে আসামীরা বাজারে এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। এ সময় একটি দোকানে বসে থাকা অবস্থায় গুলিবিদ্ধ হন যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদের ছোট ভাই হাতিয়া ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক আশরাফ উদ্দিন (৪০)। হাতিয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আশরাফকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৯ এপ্রিল তার মৃত্যু হয়।

About banglamail

Check Also

আদালত প্রাঙ্গণ থেকে নড়াইল জামায়াতের ১২ নেতাকর্মীকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ।

নাশকতার মামলায় নড়াইল শহর থেকে জামায়াতের ১২ নেতাকর্মীকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। এদিকে আদালত সূত্রে …