এরশাদ কাকু নাকি দেশে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি ছাড়া কোন দলই দেখে না।

দেশের রাজনীতির মাঠে এখন আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি ছাড়া কোন দল নেই। এমন মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজধানীতে গণসংযোগ ও পথসভায় তিনি বলেন, দেশে এখন সুশাসন ও মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নেই। তাই জনগণ পরিবর্তন চায়, চায় নতুন নেতৃত্ব। আর জাতীয় পার্টির মাধ্যমেই আগামী নির্বাচনে ক্ষমতার রাজনীতিতে পরিবর্তন আসবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।পয়লা ফেব্রুয়ারি সিলেটে মাজার জিয়ারতের মধ্য দিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে প্রথম তৃণমূলে নির্বাচনী গণসংযোগ শুরু করলেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। বহর নিয়ে বের হন নিজ নির্বাচনী এলাকা ঢাকা সতেরোতে। এসময় বনানী, কালশী, মিরপুর এগারো থেকে দশ ও চৌদ্দ নম্বরে শুভেচ্ছা জানান ভোটারদের।

একপর্যায়ে ভাসানটেকে গাড়ি থেকে নেমে তিনি পরিদর্শন করেন গেলো রাতে পোড়াবস্তিও। এরপর ভাসানটেক মোড়, ভাসানটেক কলেজ মাঠ ও কচুক্ষেতে তিনটি পথসভায় যোগ দেন সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ। এসময় পার্টির নেতারা বলেন, দু’টি দলের সহিংস রাজনীতিতে প্রমাণ হয়েছে, জাতীয় পার্টিই উন্নয়ন, নিরাপত্তা, আর সহনশীলতার রাজনীতি করছে।হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ তার শাসনামলের কথা উল্লেখ করে বলেন, দেশের মানুষকে স্বস্তি দিতে পারে একমাত্র জাতীয় পার্টি। আর জনগণও ভরসা করে জাতীয় পার্টির ওপর। এসময় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান আগামি নির্বাচনে ঢাকা সতেরো আসন থেকে আবারো নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করলে, উপস্থিত জনতা হাত তুলে সমর্থন জানায়।

Comments Us On Facebook: