প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধোঁকা দেওয়ায় ‘মোদীকে তাড়িয়ে দেবে দেশের মানুষ’

অাচ্ছে দিনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দেশের মানুষকে ধোঁকা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ তাই ২০১৯-এই মোদীকে তাড়িয়ে দেশের মানুষ এর যোগ্য জবাব দেবেন৷শনিবার সন্ধ্যায় হাওড়া ময়দান ফাঁসিতলায় মধ্য হাওড়া তৃণমূল কংগ্রেসের এক প্রতিবাদ সভায় এই মন্তব্য করেন রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী তথা হাওড়া সদরের তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অরূপ রায়৷এদিন তিনি বলেন, “লোকসভা ভোটের আগে দেশের বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে অাচ্ছে দিনের স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন মোদীজি৷ কিন্তু বাস্তবে মানুষ দেখলেন প্রধানমন্ত্রী তাঁর প্রতিশ্রুতি পূরণ করেননি৷ নোটবন্দি, জিএসটি, এফআরডিআই থেকে শুরু করে একের পর এক জনবিরোধী নীতি নিয়েছেন৷

রান্নার গ্যাস, পেট্রল, ডিজেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি হয়েছে৷” তাই তাঁর ধারণা, “মোদীজির অাচ্ছে দিন এখন ভালভাবেই উপলব্ধি করতে পারছেন দেশের আমজনতা৷ এর জবাব ২০১৯ এর ভোটবাক্সে জনগণ দেবেন৷ মোদীকে তাড়িয়ে বিদায় করবেন৷”অরূপ রায় ওই সভায় বলেন, “গত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি, সিপিএম, কংগ্রেস আমাদের বিরুদ্ধে লাগাতার প্রচার করেছিল৷ কুৎসা করেছিল৷ কিন্তু ভোটের ফলাফল বেরতেই দেখা গেল আমরা পেলাম ২১১টি আসন৷ ওরা একসঙ্গে লড়ে কুৎসা করলেও বাংলার মানুষ মমতাকেই আশীর্বাদ করলেন৷ তাঁর প্রতি আস্থা রাখলেন জঙ্গলমহলে যে মাওবাদীরা একদিন একে৪৭ অস্ত্র ধরত, সেখানে আজ তারাই অস্ত্র ত্যাগ করেছে৷ সেখানে উন্নয়ন হয়েছে৷ পাহাড়ে উন্নয়ন হয়েছে৷”

কন্যাশ্রী, যুবশ্রী, সবুজসাথী, ন্যায্যমূল্যে মেডিসিন শপ এই বাংলায় প্রভূত উন্নয়ন হয়েছে বলেও দাবি করেন অরূপ রায়৷ এই সভায় তিনি বলেন “মানুষের ভরসা রয়েছে নেত্রীর উপর৷” এদিনের সভায় তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে উপস্থিত ছিলেন সুপ্রীতি চট্টোপাধ্যায়, সৃষ্টিধর ঘোষ, শ্যামল মিত্র, গৌতম দত্ত, সীমা নস্কর, শেখ ইসলামউদ্দিন (লালা) প্রমুখ নেতৃবৃন্দ৷ উল্লেখ্য, স্থানীয় জুগনু ক্লাবের সামনে এই সভার আয়োজন করেছিল তৃণমূল৷

Comments Us On Facebook: