কঠিন প্রতিশোধের ঘোষণা এরদোগানের

সিরিয়ায় আফরিন অঞ্চলে তুর্কি সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে দুই সেনা নিহত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের মদদপুষ্ট কুর্দি গেরিলাগোষ্ঠী ওয়াইপিজির বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর সময়ে এ হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয় বলে তুর্কি জেনারেল স্টাফ শনিবার জানিয়েছেন। খবর ডেইলি সাবাহর।কয়েক দিন বিরতির পর আফরিন এলাকায় বিমান হামলা শুরুর মাত্র একদিন পরই এটি বিধ্বস্ত হলো । শনিবার আরো আগে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এ ঘটনায় জড়িতদের চড়া মূল্য দিতে হবেতবে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার সঙ্গে কারা জড়িত সে কথা উল্লেখ করেননি তিনি।প্রধানত ওয়াইপিজিকে লক্ষ্য করে গত মাসের ২০ তারিখে এ হামলা শুরু করেছিল তুরস্ক। ইদলিবে সন্ত্রাসীরা রুশ একটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার পর হামলা বন্ধ রেখেছিল তুরস্ক। মস্কোকে বিমান প্রতিরক্ষাব্যবস্থা জোরদারের সুযোগ করে দেয়ার জন্য হামলা বন্ধ রাখা হয়েছিল।

তুরস্ক দাবি করছে তুরস্কবিরোধী গেরিলাদের সঙ্গে ওয়াইপিজির যোগসাজশ রয়েছে।কুর্দি বিদ্রোহীদের হামলায় ২ তুর্কি সেনা নিহত……………….তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি ‘পিকেকে’র হামলায় অন্তত ২ তুর্কি সেনা নিহত হয়েছেন।আহত হয়েছেন আরো একজন।দেশটির সামরিক বাহিনী এক বিবৃতিতে জানায়, সোমবার ইরাকের সীমান্তের কাছে হাক্কারি প্রদেশের সেমদিনলি এলাকায় সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান চলানো হয়। এ সময় পিকেকের সদস্যরা সেনাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালালে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।আহত সেনা সদস্যকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।২০১৫ সালে সরকারের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি চুক্তি ভেঙ্গে যাওয়ার পর থেকে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য হামলা চালিয়ে আসছে পিকেকে গোষ্ঠী।

Comments Us On Facebook: