গানবাজনাওয়ালা লোক মাদ্রাসার দায়িত্বে কেন ?

নতুন মন্ত্রীসভায় শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে রাজবাড়ি-১ আসনের এমপি কাজী কেরামত আলীকে, দেয়া হয়েছে কারিগরি ও মাদ্রাসা বোর্ডের দায়িত্ব।কোন একটি বিষয়ে দায়িত্ব দেয়ার আগে ঐ লোকটি সে বিষয়ে কতটুকু উপযুক্ত সেটা যাচাই করা জরুরী। কারণ সে যদি উপযুক্ত-ই না হয়, তবে সে পুরো জাতিকে চালাবে কিভাবে ?

মাদ্রাসা বোর্ডের দায়িত্ব যাকে দেয়া হবে তাকে অবশ্যই ধর্মীয় জ্ঞান সম্পন্ন হওয়া উচিত। কিন্তু কাজী কেরামত আলীকে কোন দিক বিবেচনা করে মাদ্রাসা বোর্ডের দায়িত্ব দেয়া হলো সেটা বোঝার কোন উপায় নেই।কাজী কেরামত আলী একজন গান-বাজনা করা লোক। ২০০৮ সালের এমপি নির্বাচিত হবার পর তাকে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সংস্কৃতি বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি করা হয়। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গান-বাজনা করাই তার কাজ। এমনকি মন্দির বা পূজার অনুষ্ঠানে গিয়ে হিন্দুদের ধর্মীয় গানও সে গায় ।

এমনিতেই বামপন্থী চোর শিক্ষামন্ত্রীর কারণে শিক্ষা ব্যবস্থার করুন হাল, এর মধ্যে নতুন করে ঢোকানো হলো আরেক গানবাজনাওয়ালা প্রতিমন্ত্রীকে, যাকে আবার দেয়া হলো মাদ্রাসা বোর্ডের দায়িত্বে !নাস্তিক শিক্ষামন্ত্রী দিয়ে সাধারণ বোর্ডের শিক্ষার্থীদের বানানো হচ্ছে নাস্তিক,
এখন গানবাজনাওয়ালা প্রতিমন্ত্রী দিয়ে কি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের কি গানবাজনাওয়ালা বানানো হবে ?

প্রশ্ন- সবার কাছে…..

Comments Us On Facebook: