শেখ হাসিনার পতন হলে ঘর থেকে বের হতেও পারবেন না

অসাম্প্রদায়িকতা মানে সৃষ্টিকর্তার ওপর বিশ্বাসহীনতা নয়-এ কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন লিখেছেন, ‘কে কী পালন করবে এটা নির্ধারণ করে দেয়ার ক্ষমতা আপনাকে আমাকে কেউ দেয়নি, এই ক্ষমতা শুধুই রাষ্ট্রের।’সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে খোকন এসব কথা লেখেন। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা আছে বলেই এখন গলা ফাটানো যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু কন্যার পতন হলে কী হবে-সেটা বিবেচনা করতেও বলেছেন তিনি।

‘অসাম্প্রদায়িক এই দেশে সবাই সবার ধর্ম পালন করবে। যার যার ধর্মের নিজস্ব সংস্কৃতি পালন করবে’ উল্লেখ করেন খোকন।প্রগতিশীলদের মধ্যে যারা সরকারের সমালোচনা করছেন, তাদের কঠোর সমালোচনা করেন খোকন। তিনি লেখেন, ‘তাদের উদ্দেশ্যে বলছি- আল্লাহ না করুক যদি শেখ হাসিনার কিছু হয়ে যায় গলার আওয়াজ তো অনেক দূরের কথা, বাসা থেকে বের হতে পারবেন কি না সেই চিন্তা করেন।’ শেখ হাসিনার পতন কামনা করার আগে সৃষ্টিকর্তার নাম নিয়ে জিকির করে নেয়ার পরামর্শও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেস সচিব।

খোকন মনে করেন, যারা নিজেরা খুব বেশি প্রগতিশীল বলে গলার জোর বাড়িয়ে দিয়েছেন, বলছেন শেখ হাসিনা পরাজিত হলে বিজয় উৎসবে যোগ দেবেন। তিনি লেখেন, ‘গলায় জোর আছে, শেখ হাসিনাকে গালি দিচ্ছেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা বঙ্গবন্ধুর মতই উদার, তাই হজম করে যাচ্ছেন। অন্য কেউ কিন্তু হজম করবে না।’প্রধানমন্ত্রীর উপপ্রেস সচিব লেখেন, ‘যার বদৌলতে এই বাংলাদেশটা পেয়েছেন, যে দেশটাকে নিয়ে আপনাদের এখন অনেক টেনশন, সে দেশটার স্থপতিকে যখন সপরিবারে হত্যা করেছিল তখন তো ওই খুনিদের সঙ্গেও অনেক হাত মিলিয়েছেন, কবিতা-ছড়া লিখেছেন, খাল কেটেছেন।’

বিএনপি-জামায়াতের সময় যে বিড়াল হয়ে থাকতেন সেইটা ভুলে গেছেন মন্তব্য করে খোকন আরও লেখেন, ‘কেউ কেউ তো রাষ্ট্রদ্রোহীতার মামলা নিয়েও পালিয়ে বেড়িয়েছেন। তখন তো শেখ হাসিনাই আশ্রয় দিয়েছিলেন। আর আপনাদের গলায় জোর তা কোত্থেকে এসেছে জানেন তো? গলার এই জোর কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যার বদৌলতেই পেয়েছেন।’
উৎসঃ purboposhchimbd

Comments Us On Facebook: