ধুনটে উদ্বোধনের আগেই বিএনপির দলীয় কার্যালয় ভাংচুর করল ছাত্রলীগ

বগুড়ার ধুনটে উদ্বোধনের কয়েক ঘন্টা আগেই উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। শনিবার সকাল ১০টায় ধুনট পৌর এলাকার পশ্চিম ভরনশাহী এলাকায় এঘটনা ঘটে।জানাগেছে, ২০০৬ সালের ১০ই অক্টোবর ধুনট পৌর এলাকার ফলপট্টি এলাকায় উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা। এরপর থেকেই ধুনট উপজেলা বিএনপির কোন দলীয় কার্যালয় ছিল না। সম্প্রতি বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা বিএনপির উপদেষ্টা শফিউজ্জামান খোকন ধুনট পৌর এলাকার পশ্চিম ভরনশাহী গ্রামে তার ব্যক্তিগত জায়গায় ধুনট উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয় নির্মান করেন। শনিবার বিকাল ৩টায় বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শফিউজ্জামান খোকন ও শোকরানা সহ জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ অতিথি হিসাবে দলীয় কার্যালয়ের উদ্বোধন করার কথা ছিল। এদিকে উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের উদ্বোধনের সংবাদ পেয়ে সকাল ১০টায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে টিনের বেড়া ও চেয়ার টেবিল ভাংচুর করে।
ধুনট উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব শরাফত জামান পাশা জানান, উপজেলা বিএনপির কোন দলীয় কার্যালয় না থাকায় তার ভাই শফিউজ্জামান খোকন নিজের জায়গায় দলীয় কার্যালয় নির্মান করে দেন। শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যালয়ের উদ্বোধন করার কথা ছিল। কিন্তু উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন রিপন ও তার লোকজন অতর্কিতভাবে দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে টিনের বেড়া ও চেয়ার টেবিল ভাংচুর করেছে। এছাড়া দলীয় ব্যানার ও পোষ্টার ছিড়ে ফেলা হয়েছে।তবে এবিষয়ে ধুনট উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন রিপন বলেন, কে বা কারা হামলা করে ভাংচুর করেছে তা আমার জানা নেই। তবে এবিষয়ে ছাত্রলীগের কোন নেতাকর্মী জড়িত নয়।ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, এবিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments Us On Facebook: