ঢাকাকে নিয়ে আতিকের যত অভিনব পরিকল্পনা

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মেয়র পদপ্রার্থী মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, নির্বাচিত হতে পারলে ঢাকাকে বৈঠকখানার মতো সাজাবেন। যে বৈঠকখানার উঠান হবে সবুজ, থাকবে খেলাধুলার সুবিধা। যেখানে জলাবদ্ধতা থাকবে না।বৃহস্পতিবার গুলশানের শাহজাদপুর এলাকায় বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় তিনি এসব কথা বলেন।আতিকুল ইসলাম তৈরি পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সাবেক সভাপতি। আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী আতিকুল ইসলাম কয়েক সপ্তাহ ধরে বিভিন্ন এলাকায় মতবিনিময় করে চলেছেন। আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেতে অন্য আর কোনো প্রার্থীকে এভাবে মাঠে সক্রিয় দেখা যাচ্ছে না।গতকাল বিকেলে আতিকুল ইসলাম শাহজাদপুরে লেকের পাশে গড়ে ওঠা বস্তির বাসিন্দাদের সঙ্গে ঘুরে ঘুরে কথা বলেন। তিনি দোকানে দোকানে গিয়ে লোকজনের সঙ্গে হাত মেলান, কোলাকুলি করেন। এলাকার লোকজন বিভিন্ন সমস্যার কথা তাঁর কাছে তুলে ধরেন।আতিকুল ইসলাম বলেন, ঢাকার এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যেতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লেগে যাচ্ছে। সময় অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হাতিয়ার। সময়কে যত কাজে লাগানো যাবে, প্রবৃদ্ধি তত বেশি হবে। মেয়র নির্বাচিত হতে পারলে যানজট নিরসন করে অচল ঢাকাকে সচল করবেন বলে জানান তিনি।দল থেকে মনোনয়ন পেলে এবং মেয়র নির্বাচিত হতে পারলে তিনটি কাজকে বেশি গুরুত্ব দেবেন বলে জানান আতিকুল। এগুলো হলো সিটি করপোরেশন এলাকায় সেবাদানকারী ৫৭টি সংস্থার মধ্যে সমন্বয় করা, ডিএনসিসি এলাকায় পরিকল্পিত ইউটার্নগুলো দ্রুত নির্মাণ করা এবং ডিএনসিসি এলাকায় চলাচলকারী বাসগুলোকে একই কোম্পানির আওতায় নিয়ে আসা।আতিকুল বলেন, যেসব সংস্থা সিটি করপোরেশন এলাকায় কাজ করছে, তাদের মধ্যে সমন্বয় করে কাজ করতে হবে। ওয়াসা, টেলিকম, ডেসকো সব সংস্থার সঙ্গে সমন্বয় করতে হবে। ঢাকায় যানজট খুব বেশি। এর মধ্যে দিনের বেলা সড়কের ওপরে ইট, বালু, সুরকি রেখে দিচ্ছে। এসব কাজ রাতের বেলা করতে হবে।

Comments Us On Facebook: