Friday , June 22 2018
Home / আলোচিত সংবাদ / শত্রুতা ভুলে শান্তি স্থাপনে এগিয়ে যাচ্ছে দুই কোরিয়া

শত্রুতা ভুলে শান্তি স্থাপনে এগিয়ে যাচ্ছে দুই কোরিয়া

দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার জন্য পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নাম ঘোষণা করেছে উত্তর কোরিয়া। পিয়ংইয়ং রোববার জানিয়েছে, দুই কোরিয়ার মধ্যে শান্তি স্থাপনের লক্ষ্যে গঠিত কমিটির প্রধান রি সন গুয়ানের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের এ প্রতিনিধিদল গঠন করা হয়েছে।উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া গত শুক্রবার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, দুই দেশ দুই বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে প্রথমবারের মতো মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক আলোচনায় বসবে। চিরশত্রুভাবাপন্ন দুই কোরিয়ার সীমান্তবর্তী গ্রাম পানমুনজমে এ বৈঠকে অনুষ্ঠিত হবে।উত্তর কোরিয়ার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা এবং সেইসঙ্গে আমেরিকার সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়ার ফলে কোরীয় উপদ্বীপে সৃষ্ট উত্তেজনা প্রশমনের চেষ্টা করা হবে এ আলোচনায়।সেইসঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ২০১৮ সালের শীতকালীন অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার অংশগ্রহণের উপায় নিয়েও এই আলোচনায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।কোরীয় উপদ্বীপে সাম্প্রতিক সময়ে প্রবল উত্তেজনা সত্ত্বেও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন গত সোমবার ঘোষণা করেন, তার দেশ দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনায় বসতে প্রস্তুত রয়েছে। সেইসঙ্গে আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় শীতকালীন অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার ক্রীড়াবিদদের প্রেরণ করতেও নিজের প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেন কিম জং-উন।তার এ ঘোষণাকে কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনা প্রশমনের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হিসেবে দেখছেন পর্যবেক্ষকরা।
পারিবারিক পুনর্মিলন কার্যক্রম শুরু করতে চায় দুই কোরিয়া!দক্ষিণ ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে এ সপ্তাহের আন্তঃকোরীয় আলোচনায় পারিবারিক পুনর্মিলন কার্যক্রম আবারো শুরু করার ব্যাপারে আলোচনার প্রচেষ্টা চালাবে সিউল। সোমবার সিউলের শীর্ষ কূটনীতিক একথা জানিয়েছেন।পুনর্মিলন বিষয়ের ওপর উত্তর কোরিয়া বেশি গুরুত্ব দেয়ার প্রেক্ষাপটে দক্ষিণ কোরিয়ার পক্ষ থেকে এমন কথা বলা হলো। কোরীয় যুদ্ধের কারণে এসব পরিবার পরস্পর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।দুই বছরেরও বেশি সময় পর গত সপ্তাহে এই প্রথমবারের মতো দুই কোরিয়া সংলাপে বসতে সম্মত হয়। আর সে ঘোষণা অনুযায়ী তারা মঙ্গলবার পানমুনজম গ্রামে আলোচনায় বসতে যাচ্ছে। এই গ্রামেই উভয়পক্ষের মধ্যে অস্ত্রবিরতি পালন করা হয়।এ আলোচনায় দক্ষিণ কোরিয়ায় আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় শীতকালীন অলিম্পিক গেমসে উত্তর কোরিয়ার অংশ গ্রহণের বিষয়টির ওপর বেশি গুরুত্ব দেয়া হবে। তবে উভয় পক্ষ তাদের নিজেদের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় আলোচনায় তুলে ধরবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।কোরীয় যুদ্ধ (১৯৫০-৫৩) অবসানের কারণে কোন আনুষ্ঠানিক চুক্তি ছাড়াই অস্ত্রবিরতি চললেও টেকনিক্যালি দুই কোরিয়া যুদ্ধের মধ্যেই রয়েছে।
দুই কোরিয়ার মধ্যে পুনরায় হটলাইন চালুজাতিসঙ্ঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস বুধবার উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে আবারো হটলাইন চালু করায় অভিনন্দন জানিয়েছেন এবং এ উপদ্বীপের পারমাণবিক ইস্যু নিয়ে সৃষ্ট অচলাবস্থা নিরসনে আরো কূটনৈতিক উদ্যোগ নেয়ার আশা ব্যক্ত করেছেন।উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া দীর্ঘদিন পর বুধবার আবারো তাদের মধ্যে যোগাযোগ চ্যানেল চালু করে। ২০১৬ সালের পর থেকে চ্যানেলটি বন্ধ ছিল। পিয়ংইয়ংয়ের নেতা কিম জং-উন দক্ষিণ কোরিয়ায় আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় শীতকালীন অলিম্পিক গেমসে একটি প্রতিনিধি দল পাঠানোর প্রস্তাব দেয়ার পর এ চ্যানেল চালু করা হলো।জাতিসঙ্ঘ মুখপাত্র ফারহান হক বলেন, ‘উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে সংলাপের ক্ষেত্রে এটি একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ।’তিনি আরো বলেন, গুতেরেস ‘আন্ত:কোরীয় যোগাযোগ চ্যানেল আবারো চালু করাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।’হক বলেন, ‘কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করতে যে প্রস্তাব জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদ আহবান করেছে, আমরা আশা করছি জোরদার কূটনৈতিক তৎপরতা সে লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক হবে।’

About editor

Check Also

মহিলা ক্রিকেট দলের শিরোপা জয় উদযাপন করলো জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা।।(ভিডিও সহ)

মহিলা ক্রিকেট দলের শিরোপা জয় উদযাপন করলো জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা।।(ভিডিও সহ) Related