আবারো কী ঘটছে সৌদির অন্দরমহলে?

সৌদি রাজপরিবারের অভ্যন্তরের পরিস্থিতি ফের আন্তর্জাতিক সংবাদপত্রের শিরনামে। সৌদি রাজকুমারদের টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে কারাগারে। তারা কি আদৌ মুক্তি পাবেন? এখন উঠছে এই প্রশ্ন। এ ঘটনায় ফের একবার নিজের শক্তি দেখালেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।এ ব্যাপারে গালফ নিউজ জানিয়েছে, নিজেদের প্রাপ্য পাওনা ও ভাতা আদায় করতে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন ১১ জন রাজকুমার। পরিস্থিতি ঘোলাটে হতে পারে এমনটা ভেবেই তাদের গ্রেফতার করা হয়। এক নির্দেশে এই রাজকুমারদের অবিলম্বে প্রাসাদ থেকে সরিয়ে নিয়ে অন্ধকার কারাগারে বন্দি করা হয়েছে।উল্লেখ্য, সৌদি বাদশাহ নিজে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে প্রধান করে সম্প্রতি দুর্নীতি দমন কমিটি গঠন করেন। যুবরাজ চাইলে যে কাউকে গ্রেফতার করার এবং যে কারো উপরে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দেবার ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। এদিকে, সৌদি গণমাধ্যম আল-অ্যারাবিয়া জানিয়েছে, ২০০৯ সালে সৌদিতে যে বন্যা হয়েছিল এবং ২০১২ সালে মার্স ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার যে ঘটনা ঘটেছিল, ওই বিষয়গুলো নিয়ে নতুন করে তদন্ত শুরু হয়েছে।পর্বপশ্চিমবাদশাহ’র প্রাসাদে প্রতিবাদ ঃ ১১ সৌদি প্রিন্স গ্রেফতার……….রাজপুত্রদের ইউটিলিটি বিল বন্ধ করে দেয়ার প্রতিবাদ করায় ১১ যুবরাজকে গ্রেফতার করেছে সৌদি আরব। সৌদি গণমাধ্যম সাবাক এই তথ্য জানিয়েছে।
শনিবার রাজধানী রিয়াদের একটি প্রাসাদে জড়ো হয়ে প্রতিবাদ জানাচ্ছিলেন এসব সৌদি রাজপুত্র। সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধেই ছিল তাদের এই প্রতিবাদ।সাবাকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রিয়াদের দক্ষিণে হা’ইর নামক একটি কারাগারে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে তাদের বন্দি রাখা হয়েছে।
সম্প্রতি অর্থনৈতিক সংস্কার চেষ্টার অংশ হিসেবে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি আরব। এরমধ্যে রয়েছে ভ্যাট ব্যবস্থার প্রবর্তন। চলতি বছরের শুরুর দিন থেকে কার্যকর হয়েছে ভ্যাট। এছাড়া রাজপরিবারের সদস্যদের জন্য পানি ও বিদ্যুতের বিল দেয়াও বন্ধ করে দিয়েছে সৌদি প্রশাসন।

Comments Us On Facebook: