নগরবাসীর সমস্যা সমাধানে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে: মো. সেলিম উদ্দিন

এম এস চৌধুরী: যেকোন দেশের উন্নয়নের বিরাট ভূমিকা পালন করে সে দেশের প্রধান শহরের জনপ্রতিনিধিরা। এক্ষেত্রে প্রায় প্রতিটি দেশের উন্নয়নের রোল মডেল হলো মেয়রগণ।

যেমন তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরের এক সময়ের জনপ্রিয় ও সফল মেয়র ছিলেন রিসেপ তাইয়্যেব এরদোগান। যার ক্যারিশম্যাটিক নেতৃত্বের কারণে শুধু ইস্তাম্বুল শহরই নয় বরং গোটা তুরস্কেই এর ব্যাপক প্রভাব লক্ষ্য করা যায়। তাই বলা যায়, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা শহরের মেয়রের ভূমিকা এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম নয়। কিন্তু তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে দূর্নীতি, আইনের শাসন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও বাসস্থানের অভাব বেশ লক্ষ্যণীয়।

আমাদের প্রিয় ঢাকা শহরও এসকল সমস্যার বানে জর্জরিত। এর সাথে মরার উপরে খারার গা হিসেবে ঢাকা শহরে দেখা দিয়েছে তীব্র জানযট, বর্ষা মৌসুমে জলাবদ্ধতা, গ্যাস, পানি ও বিদ্যুতের প্রকট অভাব এবং ব্যাপকহারে মশার উপদ্রব লক্ষ্যনীয়। তার উপর পুরো বছরেই খুন, ছিনতাই, ধর্ষণ, নিরাপত্তা এবং মানবাধিকার ভুলণ্ঠিত। দুঃখজনক হলেও সত্য যে,স্বাধীনতা অর্জনের প্রায় চার দশক অতিক্রম হলেও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা অনুযায়ী মানুষের মৌলিক অধিকার এখনো নিশ্চিত হয়নি।

আমি মনে করি, অপরিকল্পিত সমন্বয়হীন উন্নয়ন কার্যক্রম নগরবাসীর দূর্ভোগ বাড়িয়েছে। যা দুনিয়ার আর কোথাও দেখা যায় না। সুতরাং এসকল সমস্যার মোকবেলায় অপরিকল্পিত নগরায়ণ অপসারণ করে সৎ, যোগ্য ও দক্ষ জনশক্তির মাধ্যমে ঢাকা সিটি উত্তরকে একটি আধুনিক, আরো উন্নত এবং সব ধরনের নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন নগরে পরিণত করার জন্য আমি সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার উদাত্ত আহবান জানাই।

ইনশাআল্লাহ! নগরবাসীর সুখ-দুঃখে পাশে থাকার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করছি।

Comments Us On Facebook: