ঠাকুরগাঁওয়ে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের সংঘর্ষে আহত ৬

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও শহরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুদলের সংঘর্ষে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের স্থানীয় দুই নেতা-কর্মীসহ অন্তত ছয় জন আহত হয়েছেন।গত শনিবার দুপুরে হাজীপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে ঠাকুরগাঁও সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এটিএম সিফাতুল মাজদার জানান। িএ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাহিন পারভেজ নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

আহতরা হলেন জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ও শহরের পূর্বগোয়ালপাড়ার মো. বর্ষণ (২৩), ছাত্রদলকর্মী হাজীপাড়ার মো. অন্তর (১৮), হৃদয় (১৫), মুসা (১৯), রাজু (১৯) ও অনিক ইসলাম (১৬)। অন্তরকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন শহরের সরকারপাড়া মহল্লার বর্ষণ গ্রুপের সঙ্গে হাজীপাড়ার অন্তর গ্রুপের বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে প্রায় সময় এ দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে হাজীপাড়ার সূর্যের হাসি ক্লিনিকের পাশের রাস্তায় উভয় গ্রুপ ধারালো অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

ঠাকুরগাঁও হাসপাতালের চিকিৎসক নিশা মর্তুজা বলেন, আহত ছয় জনের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমের দাগ রয়েছে। “এর মধ্যে অন্তরের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।”

পরিদর্শক সিফাতুল বলেন, ওই এলাকার অভিযান চালিয়ে পাঁচটি রাম দা উদ্ধার করা হয়েছে এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সন্দেহভাজন এক যুবককে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে এবং এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার পারভেজ পুলক বলেন, “কিছুদিন আগে মহল্লা কেন্দ্রিক একটি গণ্ডগোল হয়; সেই ঘটনাকেই কেন্দ্র করেই আজকের এই সংঘর্ষের ঘটনা। আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব।”

জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. কায়েস বলেন, “এটি কোনো দলীয় গণ্ডগোল নয়; এটি মহল্লাকেন্দ্রিয়যেহেতু আমাদের একজন কর্মী আহত হয়েছেন, তাই আমরাও আইনগত ব্যবস্থা নেব।”যেহেতু আমাদের একজন কর্মী আহত হয়েছেন, তাই আমরাও আইনগত ব্যবস্থা নেব।”

Comments Us On Facebook: