দীর্ঘ ৯ বছর পর মাগুরা মহাসড়কে ল্যান্ডমার্ক ও রোডমার্কিং ! 

আসিফ হাসান কাজল-গত বছর অর্থাৎ ২০১৫-২০১৬ তে শুধু মাগুরা-ঝিনাইদহ মহাসড়কে সড়ক দূর্ঘটনার সংখ্যা ছিল ৪৯ টি। একাধিক বাস,ট্রাক চালকদের সাথে কথা বলে জানা যায় রাস্তার বেহাল দশা ও সড়কে রোড মার্কিং ও ল্যান্ড মার্ক অর্থাৎ সড়কের মাঝে ও ২ পাশে মোটা দাগ না থাকা দূর্ঘটনার অন্যতম কারণ। বিশেষ করে শীতের সময় রাতে কুয়াশার কারনে একজন চালক রাস্তায় তার অবস্থান বুঝতে পারেন না এই রোড মার্ক না থাকার কারনে! যার ফলে ঘটে দূর্ঘটনা!

দীর্ঘ ৯ বছর পর মাগুরা-ঝিনাইদহ মহাসড়কে দেওয়া হলো ল্যান্ড মার্ক ও রোড মার্কিং। আর এই কারনেই সড়ক পথে দিনে ও বিশেষ করে রাতে সুবিধা পাচ্ছেন সকল পরিবহন চালকেরা।
ট্রাক চালক মোঃ আব্দুল বলেন, শীতের রাতে রাস্তায় কুয়াশার কারনে অনেক সময় দিক ও রাস্তার কোন জায়গায় আছি তা বোঝা যায়না।
এই মোটা দাগের কারনে এখন পথে গাড়ী চালাতে সুবিধা হয়।

মাগুরা সড়ক ও জনপথ বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহেল বাকী এর কাছে নতুন ল্যান্ড মার্ক ও রোড মার্কিং এর ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে উনি বলেন,২০০৮ সালে সর্বশেষ রাস্তায় রোড মার্কিং এর কাজ হয়েছিল। এত দিনে কেন আর হয় নাই এই প্রশ্নে তিনি জানান, নির্দিষ্ট তহবিল না পাওয়ায় এই কাজ এই ৯ বছরে করা হয়নি!
তিনি আরও জানান, নিয়মিত সময়ে রাস্তার রক্ষানাবেক্ষন এর কাজ এর অংশ হিসাবেই এবার এই কাজ করা হচ্ছে।

আশপাশের যে কোন জেলার মহাসড়কের চেয়ে মাগুরা জেলার সড়ক এর অবস্থা অনেক ভাল। এই ব্যাপারে আব্দুল্লাহেল বাকী বলেন সব সড়কের কাজ এক সময়ে করা হলেও মাগুরা জেলার  সড়কের কাজ ভাল হওয়ায় সুন্দর অবস্থা।
মাগুরা জেলার পার হয়েই ঝিনাইদহ ও যশোর জেলায় প্রবেশ করলে সড়কের বেহাল অবস্থা সরেজমীনে দেখা যায়।
Comments Us On Facebook: