কুর​আন শপথ করে মাহফিলে উপস্থিত হতে না পারার কারনে যা বললেন হাফিজুর রহমান (ভিডিওসহ​)

৫০ হাজার টাকা অগ্রিমের জন্য ন​য়​, অসুস্থতাজনিত কারনে নোয়াখালীর চাটখিলে ওয়াজ মাহফিলে আসতে পারেননি বলে জানিয়েছেন মাও: হাফিজুর রহমান কুয়াকাটা। তিনি তার জানান, অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে – অসুস্থতাজনিত কারনে আজকের নির্ধারিত মাহফিলে উপস্থিত থাকতে পারিনি না বলে দুঃখ প্রকাশ করছি। সুস্থতার জন্য সকলের দোয়া চাই।

এর​আগে উত্তরের আলো নামক একটি সংবাদপত্র মারফত বাংলামেইল৭১ সংবাদ প্রকাশ করে , ৫০ হাজার টাকা অগ্রিম না দেয়াতে মাহফিলে আসেননি প্রধান বক্তা মাও: হাফিজুর রহমান কুয়াকাটা ! সেখানে ১০ হাজার টাকা অগ্রিম নেয়ার একটি রশিদ প্রমানসহ পাওয়া যায়। চাটখিল প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর চাটখিলে একদিন ব্যাপী ওয়াজ মাহফিলে প্রধানবক্তা হাফিজুর রহমান (কুয়াকাটা) অগ্রিম টাকা নিয়ে চাটখিলে ওয়াজে আসেনাই। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড সুন্দরপুরে।স্থানীয় এলাকাবাসী ও মাহফিল কমিটি জানান, এই আয়োজনে বিগত কয়েক বছর ধরে এখানে ওয়াজ মাহফিল করে আসছিল স্থানীয় এলাকাবাসী। মাহফিল কমিটির নেতৃত্বে হাফিজুর রহমান (কুয়াকাটা)কে প্রধান বক্তা করে এখানে ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এবং হাফীজুর রহমান ছিদ্দীকর সাথে চুক্তি অনুযায়ী ১০,০০০টাকা অগ্রিম প্রদান করা হয়।

এ লক্ষ্যে এক সাপ্তাহ আগ থেকে এলাকায় মাইকিং ও বিভিন্ন পোষ্টার বিলি করে প্রচার প্রচারনা চালানো হয়। আয়োজক কমিটি বিভিন্ন দানশীল ব্যক্তি ও লোকজন থেকে অনুদান সংগ্রহ করে। গতকাল সন্ধ্যায় ওয়াজ মাহফিলে যোগদান করতে দূর দূরান্ত থেকে ধর্মপ্রান মুসল্লিরা জমায়েত হতে থাকে। মাহফিল শুরু করলে রাত ৯টার দিকে প্রধান বক্তা হাফিজুর রহমান (কুয়াকাটা) না আসায় লোকজন উত্তেজিত হয়ে পড়ে।

এই ব্যপারে মাহফিল কমিটির সদস্যরা জানায় হাফিজুর রহমান (কুয়াকাটা) আমাদের কাছে ৪০,০০০ টাকা অগ্রিম চাইলে আমরা দশ হাজার টাকা দিয়ে বাকি টাকা মাহফিল সম্পূর্ণ হলে দিবো বলি, হয়তোবা আমরা সম্পূর্ণ টাকা না দেয়ার কারনে আসেনাই।এর আগে গত ২৯ নভেম্বর নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে একদিন ব্যাপী ওয়াজ মাহফিলে প্রধান বক্তা হাফিজুর রহমান (কুয়াকাটা) না আসায় প্যান্ডেল ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। বগাদিয়া কেন্দ্রীয় মসজিদ কমিটির ভারপ্রাপ্ত কোষাধ্যক্ষ ও ওয়াজ মাহফিল আয়োজক কারী রাকিব উদ্দিন জানান, মসজিদের ইমাম রেয়াজুল ইসলামের মাধ্যমে হাফিজুর রহমান (কুয়াকাটার) সাথে যোগাযোগ করা হয়। ৪০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। বক্তা ওয়াজ মাহফিলে না আসায় ঐ ইমাম পলাতক রয়েছে।

Comments Us On Facebook: