বাকশালের রাজ্যে নতুন অস্ত্র “সাউন্ড স্টিমুলেটর” ! (ভিডিও)

বিদ্যুৎ ও নিত্যপণ্যে দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে বাম দলগুলোর ডাকা হরতালে নতুন অস্ত্র ব্যবহার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। হরতালের সমর্থনকারীরা অভিযোগ করেন, বৃহস্পতিবার সকালে শাহবাগে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে নতুন এ যন্ত্রের ব্যবহার করেছে পুলিশ।হরতালকারীদের অভিযোগ, শাহবাগে অবস্থান নিতে চাইলে পুলিশ তীব্র শব্দ সৃষ্টি করে আমাদের আক্রমণ করে। পুলিশ গণতান্ত্রিক আন্দোলন রুখে দিতে নতুন এ অস্ত্র ব্যবহার শুরু করেছে।

নতুন এ অস্ত্রের নাম ‘সাউন্ড স্টিমুলেটর’। এ যন্ত্রের কাজ হচ্ছে প্রবল শব্দ সৃষ্টির মাধ্যমে আন্দোলনকারীদের সমস্যা সৃষ্টি করা। গোলাকৃতির স্টিমুলেটরটি পুলিশের সাজোয়া যানের উপরে স্থাপিত থাকে।

রমনা জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) এহসানুল ফেরদৌস বলেন, সাউন্ড স্টিমুলেটরের বাংলা অর্থ শব্দ বর্ধনকারী। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে শব্দ সৃষ্টি করে বিশৃঙ্খলাকারীদের ডিসটার্ব করা। সাধারণ মানুষের সমস্যার বিষয়ে তিনি বলেন, টিয়ার গ্যাস ছুড়লেও তো সাধারণ মানুষের সমস্যা হয়। তাছাড়া যন্ত্রটি যেদিকে তাক করে দেয়া হবে সেদিকেই শব্দ বেশি হবে।

গত ২৩ নভেম্বর রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) সংবাদ সম্মেলন করে খুচরা পর্যায়ে ইউনিটপ্রতি বিদ্যুতের দাম ৩৫ পয়সা বাড়ানোর ঘোষণা দেয়। যা ১ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে। এর প্রতিবাদে হরতালের ডাকা দেয় বাম দলগুলো। বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেয় প্রগতিশীল ছাত্র জোটের কর্মীরা। পুলিশ এ সময় সাঁজোয়া যান থেকে বিকট শব্দ সৃষ্টি করে আন্দোলনকারীদের সরিয়ে দেয়।

Comments Us On Facebook: